30 হাজার টাকার গেমিং পিসি তৈরি করার নিয়ম | গেমিং কম্পিউটার


30 হাজার টাকার গেমিং পিসি

30 হাজার টাকার গেমিং পিসি তৈরি করার নিয়ম

 

আজকে আমি আপনাদের মাঝে শেয়ার করব 30 হাজার টাকার গেমিং পিসি তৈরি করার নিয়ম। এই গেমিং পিসি 30 হাজার টাকার মধ্যে সবথেকে ভালো গেমিং পিসি। এই গেমিং পিসিতে আপনি সব ধরনের গেম খেলতে পারবেন। শুধু গেমিং না কম্পিউটার বাকি যত কাজ আছে সবগুলো কাজই করতে পারবেন এই কম্পিউটারের সাহায্যে। আরো বিস্তারিত আলোচনা নিচের ভিডিওতে দেওয়া আছে।

 

এই গেমিং পিসি তৈরি করতে যে কম্পোনেন্টগুলো আমি ব্যবহার করেছি এই কম্পোনেন্টগুলো আমি চেষ্টা করছি সবথেকে ভালো মানের কম্পোনেন্ট ব্যবহার করতেন। সবথেকে ভালো কম্পনেন্ট ব্যবহার করার কারণে কম্পিউটার দাম কিন্তু সামান্য পরিমাণে বেড়ে গেছে। আপনার বাজেট যদি কম হয় তাহলে আপনি আপনার মনের মতন কম্পোনেন্টগুলো বেছে নিতে পারেন। এই গেমিং পিসি ব্যবহার করা কম্পোনেন্টগুলো বিস্তারিত বিবরণ নিচে দেওয়া আছে।

 

আপনার কিছু প্রশ্ন উত্তর

 

এখন অনেকে বলতে পারেন 30 হাজার টাকার গেমিং পিসি আসলে কাদের জন্য তৈরি করা হয়েছে। 30 হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে ভালো গেমিং ও গ্রাফিক্স ডিজাইন কাজ ও মোটামুটি মানের ভিডিও এডিটিং কথা মাথায় রেখেই এই গেমিং কম্পিউটার তৈরি করা। আপনার যদি আরো কোন প্রশ্ন থাকে এই গেমিং কম্পিউটার সম্পর্কে থাকে তাহলে নিচে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করতে পারেন অথবা আমাদের Bangladesh Gamer ফেসবুক গ্রুপে জয়েন হয়ে আমাদেরকে বলতে পারেন।

 

এই গেমিং পিসি আপনার লোকাল যেকোনো কম্পিউটার দোকান থেকে তৈরি করে নিতে পারেন। এই গেমিং কম্পিউটার তৈরি করতে আপনার যদি কোন প্রকার সমস্যা হয় তাহলে কমেন্ট এর মাধ্যমে আমাকে জানাবেন আমি আপনার সমস্যার সমাধান দেওয়ার যথেষ্ট পরিমাণে চেষ্টা করব।

 

যে কোন কম্পিউটারের মেইন কম্পোনেন্ট থাকে ৭ টি। যেমন:

  1. প্রসেসর
  2. মাদারবোর্ড
  3. র‍্যাম
  4. হার্ডডিস্ক
  5. পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিট
  6. গ্রাফিক্স কার্ড
  7. চ্যাসিস অথবা কেসিং

 

গ্রাফিক্সকার্ড বাদ দিলে মেইন কম্পোনেন্ট ৬ টি। গেমিং কম্পিউটার তৈরি করতে কোন প্রকার গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করিনি। আপনার বাজেট যদি বাড়াতে পারেন তাহলে আপনি একটি গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করতে পারেন। এই গেমিং পিসি তৈরি করতে আমি যে কম্পোনেন্টগুলো ব্যবহার করেছি এই  কম্পোনেন্টগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পাওয়ার জন্য নিচের ভিডিওটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ দেখুন।

 


ভিডিওতে শুধু এই পিসি বিল্ড এর বিষয়ে না একটা কাস্টম পিসি বিল্ড করার ক্ষেত্রে যে বিষয় গুলো আমারদের জানা থাকলে আর যাইহোক পিসি কিনে ধরা খেতে হবেনা সে বিষয় গুলি তুলে ধরার চেষ্টা করেছি আশা করি ভিডিওটা কারো না কারো উপকারে আসবে I

 

আরেকবার দেখে নেয়া যাক কোন কোম্পানির গুলো কি ধরনের দাম

  • Processor : RYZEN 3 3200G – দাম: 8,900 টাকা
  • Motherboard : MSI B450M Pro M2 MAX  – দাম: 7,500টাকা
  • RAM : Corsair Vengeance LPX 8GB 3200MHz – দাম: 3,600 টাকা
  • Transcend 830S 128GB M.2 – দাম: 2,800 টাকা
  • চ্যাসিস/কেসিং : Gamdias Argus E1 – দাম: 3,200 টাকা
  • CPU FAN : 2x 120mm LED Case fan  – দাম: 300 টাকা
  • HDD 500GB Refurbished Abroad Used (Not Recommend ) – দাম: 1000 টাকা
  • Power Supply Unit (PSU) : Corsair VS450 Psu – দাম: 3000 টাকা

 

30 হাজার টাকার গেমিং পিসি তৈরি করতে সর্বমোট আমাদের খরচ পড়েছে 30300 টাকা অথবা 30500 টাকা। আপনি যদি ভাল দামাদামি করতে পারেন তাহলে 30000 টাকার মধ্যে গেমিং কম্পিউটার তৈরি করতে পারবেন। আরেকটা কথা বলে রাখা ভালো দাম কিন্তু সবসময় একরকম থাকে না।

 

30 হাজার টাকার গেমিং পিসি

 

প্রসেসর এর বিবরণ :  30 হাজার টাকার গেমিং পিসি প্রসেসর হিসেবে আমরা বেছে নিয়েছি RAYZEN 32200G APU প্রসেসর। প্রসেসটি বাজেটের মধ্যে অনেক ভালো। এই প্রসেসর টির মাধ্যমে আপনি অনেক ভালো মানের গেমিং করতে পারবেন। বর্তমানে বাংলাদেশের বাজারে যে কোন জায়গা প্রসেসরটি পাওয়া যায়।

 

  • 4 Cores
  • 4 Threads
  • 8 GPU Cores
  • AMD SenseMI Technology
  • AMD Ryzen™ Master Utility
  • Enmotus FuzeDrive™ for AMD Ryzen™
  • Radeon™ Software
  • Radeon™ FreeSync Technology

 

মাদারবোর্ড বিবরণ : আমরা মাদার্বোর্ড হিসেবে ব্যবহার করছি MSI B450M Pro M2 MAX মাদার্বোর্ড । মাদারবোর্ড সকল গুরুত্বপূর্ণ ফিচার নিচে দেয়া হল। মাদারবোর্ডটি আপনি বাংলাদেশের যে কোন জায়গা থেকে কিনতে পারবেন।

 

মাদারপুর টেকনিক্যাল বিবরণV

  • Supports 1st, 2nd and 3rd Gen AMD Ryzen
  • AMD B450 Chipset
  • Turbo M.2 & Audio Boost Technology
  • X-Boost & Core Boost Technology
  • Supports 1st, 2nd and 3rd Gen AMD Ryzen
  • AMD B450 Chipset
  • Turbo M.2 & Audio Boost Technology
  • X-Boost & Core Boost Technology

 

রেম এর বিবরণ : রেম হিসেবে আমরা ব্যবহার করছি Corsair Vengeance LPX 8GB 3200MHz। একটা 8GB RAM ব্যবহার করার কারণ আপনি ভবিষ্যতে আরেকটা 8GB RAM ব্যবহার করতে পারবেন। প্রফেশনাল কাজ অথবা ভাল গেমিং এর কথা চিন্তা করলে আরও একটা 8GB RAM ব্যবহার করতে হবে।

 

RAM টেকনিক্যাল বিবরণ

  • Frequency: 2400MHz
  • Operating voltage: 1.5V
  • Pin: 240 pin
  • CAS Latency: 15.0/16.0

 

SSD ও HDD বিবরণ : এই গেমিং কম্পিউটারে ভিতরে আমি একটি SSD ব্যবহার করছি ও পাশাপাশি HDD ব্যবহার করছি। SSD হিসেবে ব্যবহার করছি Transcend 830S 128GB M.2 SSD। আর HDD হিসেবে ব্যবহার করছি HDD 500GB Refurbished Abroad Used HDD আপনার যদি প্রয়োজন হয় আপনি ব্যবহার করতে পারেন আমার প্রয়োজন আমি ব্যবহার করছি

 

কম্পিউটার কেসিং : কম্পিউটার কেসিং হিসেবে ব্যবহার করছি Gamdias Argus E1। দামের কথা চিন্তা করলে অনেক ভালো কিছু অফার করছে। সব থেকে মজার বিষয় এই গেমিং কম্পিউটার আপনি সামনের অংশে আরজিবি লাইটিং ইফেক্ট পাবেন।

 

পাওয়ার সাপ্লাই বিবরণ : পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিট হিসেবে আমি ব্যবহার করছি Corsair VS450 Psu পাওয়ার সাপ্লাই। আপনি চাইলে আপনার মনের মতন যেই কোন পাওয়ার সাপ্লাই ব্যবহার করতে পারেন।

এই কম্পিউটার আমার গেম খেলা অনুমতি শেয়ার করলাম যদি কোন ভুল হয়ে থাকে তাহলে ছোট ভাই হিসেবে মাফ করে দেবে ধন্যবাদ।

 

PUBG গেম 30 হাজার টাকার গেমিং পিসি PUBG খেলে দেখেছি। PUBG গেমটি খেলতে পারবে ফুল এইচডি তে হাই সেটিং কোন সমস্যা ছাড়া। ফুল এইচডি PUBG খেলতে পারবেন কিন্তু ফুল এইচডি দে খেললে অনেক ফ্রেন্ড ডফ দেখা যায়। এ কম্পিউটার আপনি এইচডি তে ভালো মানের গেমিং করতে পারেন কোন সমস্যা করে। এই কম্পিউটার যদি একটি গ্রাফিক্স কার্ড থাকতো তাহলে অনেক ভালো গেমিং করতে পারবেন।

 

GTA 5 গেমটি খেলে দেখেছি গেম খেলা অনুভূতির ছিল অনেক ভালো। কম্পিউটার এর ভিতরে যদি একটি গ্রাফিক্স কার্ড থাকে তাহলে গ্রাফিক্স কয়টি অনেক ভালো হতো। গ্রাফিক্স কার্ড ছাড়া GTA 5 গেম টি খেলতে পারবেন। কিন্তু গ্রাফিক্স কার্ড হলে অনেক ভালো হতো।

 

ভিডিও এডিটিং বাংলাদেশের তরুণ ইউটিউবার দেয় কথা মাথা রেখেই কম্পিউটার ভিডিও এডিটিং করে দেখেছি। ভিডিও এডিটিং ছিল অনেক ভালো। আপনি এ কম্পিউটারে ভালো মানের ভিডিও এডিটিং আশা করতে পারেন। আমরাই এ কম্পিউটার একটি এইচডি ভিডিও এডিটিং করে দেখেছি এডিটিং ছিল অনেক ভালো কিন্তু রেন্ডারিং অনেক সময় লাগে। কম্পিউটারের যদি গ্রাফিক্স কার্ড থাকতো তাহলে রেন্ডারিং সময় অনেক কমে যেত।

 

গ্রাফিক্স  ডিজাইন এ কাজ এই কম্পিউটারে ভালো মানের গ্রাফিক্স ডিজাইন এ কাজ করতে পারেন।গ্রাফিক ডিজাইনের কাজ করার জন্য সব থেকে ভালো কম্পিউটার এই বাজেটে এটি। আপনি কোন সমস্যা ছাড়াই গ্রাফিক্স এর সকল সফটওয়্যার ব্যবহার করতে পারবেন। এই কম্পিউটার অফিস সব ধরনের গ্রাফিক্স ডিজাইন কাজ করতে পারবেন কোন সমস্যা ছাড়া

 

আপনাদের একটি কমেন্ট আপনার একটি শেয়া পরবর্তী কম্পিউটার গেমিং পিসি তৈরি করতে আমাদের প্রেরণা। আপনি যদি আমাদেরকে সাহায্য করতে চান তাহলে এই পোস্টটি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন। কমেন্টে জানাবেন গেমিং পিসি টি আপনার কাছে কিরকম লেগেছে। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট করে আমাদের ওয়েব সাইটে আসার জন্য। ধন্যবাদ


© 2020 Bangladeshgamer.com