GTX 1050Ti Bangla Review || বাজেটের গ্রাফিক্স কার্ড


বাজেটের গ্রাফিক্স কার্ড

GTX 1050Ti Bangla Review

 

আমাদের কাছে প্রায় অনুরোধ আসে বাজেটের মধ্যে ভালো গ্রাফিক্স কার্ড নাম কি। আপনাদের অনুরোধের কথা মাথায় রেখে আমরা নিয়ে আসলাম বাজেটের গ্রাফিক্স কার্ড। আজকে আমি আপনাদের ASUS Expedition GeForce® GTX 1050Ti  নিয়ে আলোচনা করব। এই কার্ডে আপনি প্রায় 2018 সালের সকল জনপ্রিয় গেম খেলতে পারবেন কোন সমস্যা ছাড়াই।

 

এক কথা যদি বলি বর্তমান যুগের সকল গেম খেলতে পারবেন কোন সমস্যা ছাড়াই। এই কার্ডটি আপনি সহজে বাংলাদেশের বাজারে কিনতে পারবেন কোন সমস্যা ছাড়া। আরো বিশদ জানতে চাইলে আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ুন।

 

গ্রাফিক্সকার্ড আলাদা কোন পাওয়ার লাগে না। আগের থেকে ওভার ক্লক করা আছে। তারপরও গ্রাফিক্স কার্ডটি বেশি গরম হয় না আমার দেখা। গ্রাফিক্সকার্ডটি ভিতরে কিন্তু দুইটি ফ্যান ব্যবহার করা হয়েছে। দুইটি ফ্যান ব্যবহার করার ফলে  অনেক ঠান্ডা ও শীতল থাকে।  কার্ড এর জন্য আলাদা কোন ফ্যান ব্যবহার করতে হবে না।

 

GTA 5 খেলতে পারবেন HD+ কোন সমস্যা ছাড়া। সবগুলো সেটিং হাই করে খেলতে পারবেন FULL HD তে। 2K গেমিং করতে গেলে হালকা পাতলা সমস্যা দেখা দেয়। FULL HD GTA 5 গেমটি সুন্দর ভাবে কোন সমস্যা ছাড়াই চলে।গেমটি ভিতর ভালো মানের গ্রাফিক্স পাবেন। আমি মনে করি GTA 5 খেলার জন্য এই গ্রাফিক্স কার্ডের যথেষ্ট পরিমাণে শক্তি আছে

 


GTX 1050Ti বাজেটের গ্রাফিক্স কার্ড

 

PIBG গেমটি খেলতে পারবেন কোন সমস্যা ছাড়া FULL HD তে। সবগুলো সেটিং হাই করে খেলতে পারবেন FULL HD তে। 2K গেমিং করতে গেলে হালকা পাতলা সমস্যা দেখা দেয়। গেমটি খেলতে গেলে আপনার ইন্টারনেট স্পিড অনেক বেশি লাগবে। আপনার যদি ইন্টারনেট স্পিড কম থাকে তাহলে অনেক সমস্যা হবে।

 

গেমটি ভিতর ভালো মানের গ্রাফিক্স পাবেন। সম্পূর্ণ গেম এর অভিজ্ঞতা নির্ভর করবে আপনার ইন্টারনেট স্পিড এর উপর।  আপনার ইন্টারনেট স্পিড যদি কম থাকে তাহলে গেম এর অভিজ্ঞতা হবে খারাপ আর আপনার ইন্টারনেট যদি বেশি থাকে তাহলে গেম এর অভিজ্ঞতা হবে অনেক ভালো। আমি মনে করি এই গ্রাফিক্সকার্ডের সাহায্যে PIBG গেমটি খেলতে পারবেন কোন সমস্যা ছাড়া।

 

আপনারা চাইলে এই গ্রাফিক্সকার্ডে গেমিং এর পাশাপাশি ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন।আর গ্রাফিক্স কার্ডটি আপনার বাজেটের মধ্যে ভালো গ্রাফিক্স কার্ড এই গ্রাফিক্সকার্ডে মোটামুটি মানের ভালো ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন কোন সমস্যা ছাড়া। হাই রেজুল্যুশনের ভিডিও এডিটিং করতে গেলে রেন্ডারিং অনেক বেশী সময় লাগে। আমি মনে করি এই গ্রাফিক্সকার্ড সাহায্যে মোটামুটি মানের ভিডিও এডিটিং করতে পারবে কোন সমস্যা ছাড়াই।

 

আশা করি আমি আপনাদের কিছু টা হলে বুঝাতে পেরেছি এই গ্রাফিক্সকার্ড টা কি ধরনের কাজে ব্যবহার করা যায় ও গ্রাফিক্স কার্ডটি সাহায্যে কি গেমিং করতে পারবেন।

 

আপনাকে মধ্যে অনেকে ভাবতে পারেন গ্রাফিক্সকার্ডটি আসলেই ভালোতো। কিন্তু আমি কোথায় থেকে নিতে পারব। এই গ্রাফিক্স কার্ডটি কিনতে পারবেন আপনার আশেপাশের যে কোন লোকাল কম্পিউটার দোকান থেকে। আপনার আশেপাশে কম্পিউটার দোকানের যদি এই গ্রাফিক্সকার্ডটি না পাওয়া যায় তাহলে আপনি ইন্টারনেটের মাধ্যমে কিনে নিতে পারেন। ইন্টারনেটের মাধ্যমে কিনার সবথেকে সহজ ও নিরাপদ উপায় নিচে দেওয়া আছে আপনার চাইলে দেখে নিতে পারেন।

 

আমার লেখায় যদি আপনারা ভুল মনে হয়ে থাকে তাহলে ছোট ভাই মনে করে মাফ করে দিবেন। কমেন্টে জানাবেন এই পোস্টটি আপনার কাছে কিরকম লেগেছে। আপনাকে যদি আমি একটু পরিমাণে বুঝাতেপারি তাহলে মনে করব আমি সফল হয়েছি এ পোস্ট লিখে। আপনাদের কাছে আমার পক্ষ থেকে দুইটি অনুরোধ রইল।

 

বাজেটের গ্রাফিক্স কার্ড এই পোষ্টে যদি আপনার কাছে একটু পরিমাণে ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনি আপনার ওই বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে পারেন যারা এই সম্পর্কে জানে না। কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন এই পোস্টটি আপনার কাছে কিরকম লেগেছে।

 

4k বাজারের সেরা গ্রাফিক্স কার্ড

 

বাংলাদেশ গেমারদের জন্য গেম সম্পর্কে আমরা ফেসবুকে একটি লাইক পেজ আছে। আপনি যদি ফেসবুকের মাধ্যমে গেম সম্পর্কে আপডেট পেতে চান তাহলে Games Tips BD ফেসবুক পেজ টাকে এখনি লাইক করুন। ধন্যবাদ

 

বর্তমান বাংলাদেশ বাজার মূল্য 17,000 টাকা 

 

আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট করে আমাদের ওয়েব সাইটে আসার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আশা করি আমার এই পোস্টটি আপনার ভালো লেগেছে। আমাদের যদি কোন ভুল হয়ে থাকে তাহলে ছোট ভাই হিসেবে ক্ষমা করে দিবেন। আপনি চাইলে আমাদের পোস্টটি আপনার সকল বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে পারেন। শেয়ার করার সকল সামাজিক মাধ্যম নিচে দেওয়া আছে।


© 2018-2020 Bangladeshgamer.com